এইচএসসি বাংলা ১ম

অপরিচিতা গল্পের বিষয়বস্তু

অপরিচিতা গল্পের বিষয়বস্তু: জেনে নিন অপরিচিতা গল্পের বিষয়বস্তু। গল্পের মূল বিষয় জানা থাকলে যেকোনো সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর দিতে অনেক সহজ হবে। বেশিরভাগ সৃজনশীলে “গ” ও “ঘ” নাম্বার প্রশ্নে গল্পের মূল বিষয় এবং উদ্দীপকের মিল খুজতে বলা হয়। আর আপনি যদি গল্পের মূল বিষয় সম্পর্কে অবগত থাকে তাহলে এসব প্রশ্নের ব্যাখ্যা দেওয়াটা আপনার জন্য খুব সহজ হবে।

অপরিচিতা গল্পের মূল বিষয়বস্তু:

‘অপরিচিতা’ প্রথম প্রকাশিত হয় প্রমথ চৌধুরী সম্পাদিত মাসিক ‘সবুজপত্র’ পত্রিকায় ১৩২১ বঙ্গাব্দে (১৯১৪) কার্তিক সংখ্যায়। এটি প্রথম গ্রন্থভুক্ত হয় রবীন্দ্র
গল্পের সংকলন “গল্পসপ্তক” এ এবং পরে, “গল্পগুচ্ছ” তৃতীয় খণ্ডে (১৯২৭)।

রবীন্দ্রনাথেরঅপরিচিতা‘ সামাজিক সমস্যামূলক গল্পগুলাের মধ্যে অন্যতম। এই গল্পের প্রধান পুরুষ চরিত্র অনুপম । আর কেন্দ্রীয় নারী চরিত্র কল্যাণী। এ গল্পেই
তিনি প্রথম অমানবিক যৌতুকের বিরুদ্ধে নারী-পুরুষের সম্মিলিত প্রতিরােধের কথা বলেছেন। গল্পটি উত্তম পুরুষের জবানিতে লেখা। গল্পের কথক অনুপম বিশ
শতকের দ্বিতীয় দশকের যুদ্ধসংলগ্ন সময়ের সেই বাঙালি যুবক, যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চতর উপাধি অর্জন করেও ব্যক্তিত্বরহিত, পরিবারতন্ত্রের কাছে অসহায়
পুতুলমাত্র, তাকে দেখলে আজো মনে হয়, সে যেন মায়ের কোল সংলগ্ন শিশুমাত্র। তারই বিয়ে উপলক্ষে যৌতুক নিয়ে নারীর চরম অবমাননা কালে শম্ভুনাথ
সেনের কন্যা সম্প্রদানে অসম্মতি গল্পটির শীর্ষ মুহূর্ত।

অপরিচিতা” মনস্তাপে ভেঙেপড়া এক ব্যক্তিত্বহীন যুবকের স্বীকারােক্তির গল্প, তার পাপস্খলনের অকপট
কথামালা। অনুপমের আত্মবিবৃতির সূত্র ধরেই গল্পের নারী কল্যাণী অসামান্য হয়ে উঠেছে। গল্পটিতে পুরুষতন্ত্রের অমানবিকতার স্ফুরণ যেমন ঘটেছে, তেমনি
একই সঙ্গে পুরুষের ভাষ্যে নারীর প্রশস্তিও কীর্তিত হয়েছে।

এই ছিল অপরিচিতা গল্পের বিষয়বস্তু ।

কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্যকনিকা

১। অপরিচিতা গল্পের নায়ক – অনুপম।
২। অনুপমের বর্তমান বয়স – সাতাশ বছর।
৩। অনুপমের আগে বয়স ছিল – ২৩ বছর।
৪। অনুপম পাস করেন – এম.এ।
৫। অনুপমের আসল অভিভাবক – অনুপমের মামা।
৬। অনুপমের চেয়ে অনুপমের মামা বড় ছিল – ৬ বছরের।
৭। অনুপম মানুষ হয় – মার হাতে।
৮। অনুপমের পিতা এককালে – গরিব ছিল।
৯। অনুপমের মা ছিল – গরীব ঘরের মেয়ে।
১০। লক্ষ্মীর মঙ্গলঘট ভরা ছিল – কল্যাণীদের বংশে।

১১। যার রুচি ও দক্ষতায় অনুপমের ষােল আনা নির্ভর ছিল – বিনুদার।
১২। সরস রসনার গুণ আছে – হরিশের।
১৩। ধনীর কন্যা পছন্দ নয় – অনুপমের মামার।
১৪। হরিশ কাজ করত – কানপুরে।
১৫। অনুপমের পিতার পেশা ছিল – ওকালতি।
১৬। অন্নপূর্ণা বলতে – দেবীদূর্গাকে নির্দেশ করে।
১৭। “অপরিচিতা” গল্পে রসিক ছিল – হরিশ।
১৮। সর্বত্র খাতির ছিল – হরিশের।
১৯। কন্যাকে আশীর্বাদ করার জন্য পাঠানাে হলাে – বিনুদাকে।
২০। অনুপমকে আশীর্বাদ করা হয় – বিবাহের তিন দিন পূর্বে।

আরও পড়ুনঃ অপরিচিতা গল্পের mcq

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button